শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:০২ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
গজারিয়া ভাষা শহীদয়াদের স্মরণে আওয়ামী লীগের দোয়া ও আলোচনা সভা মুন্সীগঞ্জে ব‍্যাংকার-গ্রাহক সম্পর্ক ও গ্রাহক সেবা উন্নয়ন শীর্ষক মতবিনিময় সভা উপ মহাদেশের প্রথম মুসলিম নারী চিকিৎসকের ভাতিজী হতে চান সংরক্ষিত আসনের এমপি ইঁদুর মারার ফাঁদে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দুই যুবকের মৃত্যু! ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তরী বাংলাদেশ এর সরাইল শাখার আহবায়ক কমিটি গঠন। কোমলমতি শিশুদের পাশে -বিশিষ্ট সমাজ সেবক শফিকুর রহমান সুমন মাদারীপুর পৌর আওয়ামী লীগের আয়োজনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনোত্তর প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত গলাচিপা ডিউজ ক্রিকেট কার্নিভাল শুভ উদ্বোধন গজারিয়া ব্যাটারি চালিত অটোরিকশার ধাক্কায় পাঁচ বছরের এক শিশু নিহত হয়েছে। ডাসারে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

মুন্সীগঞ্জে সিরাজদিখানে লক্ষ টাকার সোনার ব্রেসলেট পেয়ে ফিরিয়ে দিলেন ১২ বছরের শিশু সামিম

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে লক্ষ টাকার সোনার ব্রেসলেট পেয়ে ফিরিয়ে দিলেন ১২ বছরের শিশু সামিম।উপজেলার রশুনিয়া ইউনিয়নের উপজেলা মোড় সংলগ্ন শেখ আলাউদ্দিন কমপ্লেক্সের নিচে শাহী রেস্তোরাঁয় ২৭ জানুয়ারী সকাল ১০টার দিকে এঘটনা ঘটে।

জানাযায়,বাবা মিষ্টার দিনমজুর অভাবের সংসারে ৪ ভাই বোনের মধ্যে বড় ১২ বছরের শিশু শামিম। মা-বাবা ভাই বোন নিয়ে সিরাজদিখান বাজার সংলগ্ন কাঠপট্টি মিলনের বাড়িতে ভাড়া থাকেন।লেখাপড়া ছেড়ে বাবাকে সাহায্য করতে ১ মাস যাবত ২ হাজার টাকা মাসিক বেতনে কাজ নেন উপজেলার রশুনিয়া ইউনিয়নের উপজেলা মোড় সংলগ্ন শেখ আলাউদ্দিন কমপ্লেক্সের নিচে শাহী রেস্তোরাঁয়।

প্রতিদিনের মত শিশু সামিম কাজ করতে গিয়ে টেবিলের নিচে দেখেন সোনা তৈরী ১ ভরির ওজনের একটি হাতের ব্রেসলেট পরে আছে।ব্রেসলেটটি পেয়ে সাথে সাথে শাহী রেস্তোরাঁর মালিক মো:ইসুফ হাওলাদারের কাছে জমা দেন।মো: ইসুফ হাওলাদার ব্রেসলেট এর
প্রকৃত মালিক কে পেয়ে যথার্থ প্রমাণ নিয়ে ব্রেসলেট টি ২৭ জানুয়ারী সকাল ১০টার দিকে বুঝিয়ে দেন।

শিশু সামিম জানান,আমি সব সময়ের মত টেবিল মুছতে গিয়ে নিচের দিকে দেখি একটি চেইন পরে আছে আমি চেইনটা হাতে নিয়ে সাথে সাথে মালিকের কাছে বুজিয়ে দেই।মালিক চেইনের মালিকের নিকট চেইনটি বুজিয়ে দেন।আমাদের অভাবের সংসার তাই কাজ করে আমার বাবাকে সাহায্য করি।

শাহী রেস্তোরাঁর মালিক মো:ইসুফ হাওলাদার জানান,আমি জানতে পারি আমার এক কর্মচারী সোনা তৈরী ১ ভরির ওজনের একটি হাতের ব্রেসলেট পেয়েছে।যাহার মুল্য প্রায় ১ লক্ষ টাকা আমি সাথে সাথে সংরক্ষণ করি এবং প্রকৃত মালিক কে পেয়ে তার নিকট বুঝিয়ে দেই। পাশাপাশি এ ১২ বছরের ছেলের সততা দেখে আমি মুগ্ধ আমি তার ভবিষ্যতে উজ্জ্বল মঙ্গল কামনা করছি।আমি এ ছোট ছেলের সততা দেখে ৫ শত টাকা পুরস্কার দেই।

উপজেলার লতব্দী ইউনিয়নের কংশপুরা গ্রামের মোসাম্মদ লিপি বেগম জানান,শাহী রেস্তোরাঁয় খেতে গিয়ে সোনা তৈরী ১ ভরির ওজনের একটি হাতের ব্রেসলেট হারিয়ে ফেলি।বিভিন্ন যায়গায় অনেক খোজাখুজি করে না পেয়ে শাহী রেস্তোরাঁয় এসে খোঁজ করলে রেস্তোরাঁর মালিক জানান আমরা পেয়েছি।আমি এ ব্রেসলেটের সঠিক প্রমাণ দিয়ে বুজে নেই। ১২ বছরের এ ছেলের সততা দেখে আমি মুগ্ধ। আমি এ ছেলেকে ১ হাজার টাকা পুরস্কার দেই পাশাপাশি তার ভবিষ্যতে উজ্জ্বল মঙ্গল কামনা করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


আমাদের ফেসবুক পেজ